9807c29ce3e72ec32abc8a0bf446565b

অনলাইনে উপার্জন করার ৫ টি সহজ উপায়

9807c29ce3e72ec32abc8a0bf446565b
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

 

অনলাইনে উপার্জন করার ৫ টি সহজ উপায় :

আপনারা হয়ত অনেকেই জানেন অনলাইনে টাকা উপার্জন করা যায় কিন্ত অনেকেই জানেন না কোন উপায়ে টাকা উপার্জন করা যায়। আজ আমি আপনাদের এইরকম কিছু পদ্ধতি দেখাব যার মাধ্যমে আপনি অনলাইনে উপার্জন করতে পারেন। শুরু করার আগেই আমি বলে নিচ্ছি এমন কোন প্রক্রিয়া নেই যাতে আপনি রাতারাতি টাকা উপার্জন করতে পারবেন , সেটা অনলাইনে হোক আর অফলাইনেই হোক । আপনি যদি আরনিং এর কথা চিন্তা করেন তাহলে আপনি সেই পরিমান টাকা উপার্জন করতে পারবেন যতটুকু আপনি কাজ করবেন। কাজ করার আগে আপনি মাথা থেকে এই চিন্তা ভাবনা দূর করেন যে আপনি কাজ শুরু করলেন আর ৫-১০ দিন এর ভিতর আপনার আরনিং শুরু হয়ে গেল ! হ্যাঁ , সময় লাগবে । এমন একদিন আসবে যেদিন আপনিও হাজার বা লাখ টাকা ইনকাম করবেন । আপনার যদি কাজ করার ইচ্ছা থাকে, ধৈর্য্য থাকে, আপনি যদি কাজের পিছনে সময় ব্যয় করতে পারেন তবেই আপনি কাজ শুরু করেন অন্যথায় এই কাজ আপনার জন্য না । তো চলুন শুরু করি অনলাইন আরনিং এর কিছু সহজ পদ্ধতি ।

ma xresdefault
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

 

Youtube:

সর্ব প্রথম আমি যে ওয়েব সাইট নিয়ে কথা বলব তা হচ্ছে  Youtube  । Youtube থেকে অনেকে অনেক টাকা ইনকাম করতেসে । হ্যাঁ, আপনিও Youtube থেকে ইনকাম করতে পারবেন যদি আপনার একটি Youtube চ্যানেল থাকে, তাতে ভালো পরিমান subscriber থাকে এবং ভাল পরিমান ভিও হয়। Youtube এর ভিডিও এর মধ্যে বা পাশে advertisement আসে সেই advertisement এর টাকা Youtube আপনাকে দিয়ে থাকে। এই টাকাটা মুলত Google Adsense আপনাকে দিয়ে থাকে। Adsense হচ্ছে একটি advertisement publishing company । এটি আপনার চ্যানেল এর ভিডিও এর মান অনুযায়ী আপনার চ্যানেল এর ভিডিও এর পাসে Ad দেয় এবং এর Ad থেকে প্রাপ্ত টাকার একটি অংশ Youtube রাখে এবং একটি অংশ আপনাকে দেয় ।

তো এই আরনিং তখনি ভাল হবে যখন আপনার একটি ভাল চ্যানেল থাকবে, ভাল subscriber থাকবে এবং ভাল ভিও আসবে। এখন আপনি হয়তো ভাবতে পারেন আপনার তো ভালো চ্যানেল নেই । আরে ভাই সবাই তো শুরু থেকেই শুরু করে ! Youtube আপনার জন্য একটি ভাল অনলাইন আরনিং সাইট হতে পারে যদি আপনি ভালো ভিডিও বানাতে পারেন সেটা যেকোন বিষয়ের হোক, হতে পারে কোন technology নিয়ে ভিডিও, হতে পারে funny ভিডিও, হতে পারে Vlog ভিডিও। আপনি যেকোন টাইপের যেকোন ভিডিও বানান । আপনার যদি আগ্রহ থাকে আপনি ভিডিও বানান, মানুষকে দেখান, যদি আপনার ভিডিও মানুষের ভাল লাগে তারা আপনার চ্যানেল কে এম্নেইতেই subscribe করবে, আপনার ভিও বাড়বে এবং আপনার আরনিং এম্নেতেই বেড়ে যাবে ।

affiliate-marketing
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

Affiliate Marketing:

২য় পদ্ধতি হচ্ছে Affiliate Marketing . Affiliate Marketing হচ্ছে Amazon, Flipcart, Spandeal এর মতো shoping ওয়েবসাইট এ একটি affiliate প্রোগ্রাম থাকে । এতে করে আপনি এই affiliate প্রোগ্রাম এর সাহায্যে আপনি কোন product , হয় আপনার কাছের কারো কাছে বা অন্য কারো কাছে refer করেন, এবং সে যদি আপনার generated হওা লিংক থেকে product টি কিনে তাহলে অই online shoping website ওই product  এর কিছু অংশ আপনাকে দিবে সেটা ২% হতে পারে, বা ১২% হতে পারে। এতে করে আপনার আরনিং টা ভালই হতে পারে যদি আপনি তাদের একজন affiliate মেম্বার হন । আপনি এইসব ওয়েবসাইট হতে মানুষকে shopping করান । আপনি যদি এইসকল product গুলো sell করাতে এক্সপার্ট হন, অর্থাৎ আপনার কাছে যদি তাদের product টি কাঙ্খিত audience  এর কাছে পৌঁছে দেয়ার কোন platform থাকে যেমন, আপনার কোন ওয়েবসাইট, আপনার youtube channel, এছারা বিভিন্ন সোসাল মিডিয়া যেমন ফেসবুক, টুইটার, pinterest, Linkedin,  এ আপনার affiliate  লিঙ্ক দিতে পারেন। এতে করে product টি বিক্রির কিছু অংশ আপনি পাচ্ছেন।

 

CPA Marketing:

maxresdefault
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

CPA marketing কি ? সিপিএ মার্কেটিং বলতে বুঝায় cost per action বা pay per acquisition . এখন বলতে পারেন সিপিএ মার্কেটিং এ কাজ কিভাবে করে ? সিপিএ মার্কেটপ্লেস এ আপনি যদি যান তাহলে আপনাকে একটি অফার দেয়া হবে যা একটি সিম্পল কাজ। এই খানে আপনাকে একটি zip সাবমিশন অফার দেয়া হবে যেখানে আপনি একটি ZIP সাবমিশন করবেন এবং এই কাজের জন্য আপনাকে পে করা হবে হয়তো ১ ডলার বা ২ ডলার। এটা কোন সাইন আপ ও হতে পারে। এর জন্যও আপনি কিছু না কিছু টাকা পাবেন। এই কাজ গুলোকে বলা হয় cost per action। খুব মজার না ? না আসলে বিষয়টি এমন না। আপনি বাংলাদেশ থেকে যদি এই অফার গুলো করেন তাহলে আপনি এই কাজের বিনিময়ে ডলার পাবেন না। সিপিএ মার্কেটপ্লেসগুলোতে আপনার জন্য নির্দিষ্ট কিছু এরিয়া থাকবে, আপনি ঐ সব এরিয়া থেকে ভিজিটর আনবেন এবং তারা যদি তাদের zip কোড দিয়ে প্রবেশ করে তাহলে আপনি এই কাজের জন্য টাকা পাবেন।

এখন আপনার প্রশ্ন থাকতে পারে কোন মার্কেটপ্লেস এ কাজ করবেন ? সিপিএ কাজের জন্য যে সাইট গুলো আছে তাদের মধ্যে

 

এই মার্কেটপ্লেস গুলো ভালো। এই মার্কেটপ্লেস গুলোতে সবাই কাজ করতে পারে না কিন্ত যদি সিপিএ সম্পর্কে আপনার একটি ভাল ধারনা থাকে তাহলে আপনি সাকসেসফুল হতে পারবেন। আপনি যদি ভাল কাজ পারেন তাহলে আপনি অনায়াসেই ২০০ – ৩০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

 

Web design & development:

Web-Design-Vs-Web-Development-Feature_1290x688_KL
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

এখন আপনাদের বলব ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভলপমেন্ট সম্পর্কে। টাইটেল দেখেই বুঝতে পারছেন এটি আসলে কি ! ওয়েব ডিজাইন মানে হচ্ছে একটা ওয়েবসাইট দেখতে কেমন হবে  তা ঠিক করা । অর্থাৎ একটি  সম্পূর্ণ ওয়েবসাওটের টেমপ্লেট বানানো । অন্যদিকে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট হচ্ছে একটি ওয়েবসাইটের জন্য এপ্লিকেশন তৈরী করা যেখানে একজন ওয়েব ডেভেলপার একটি ওয়েব সাইট এর জন্য ওয়েব অ্যাপ্লিকেশান তৈরি করে থাকেন। এখন প্রশ্ন হল ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপ এর জন্য কি কি লাগে ? এই কাজের জন্য আপনার কিছু প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এবং কিছু ক্রিপ্টিং  ল্যাঙ্গুয়েজ এর দরকার হবে। সেগুলো হল, HTML, CSS, JavaScript, Jquery, PHP. অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতে ওয়েব পেইজ ডিজাইনার এবং ওয়েব ডেভেলপারদের যথেষ্ট চাহিধা রয়েছে। অনলাইনে ফ্রীলাঞ্চিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে অসংখ্য কাজ ওয়েব পেইজ ডিজাইন এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ক্যাটাগরিতে প্রতিনিয়ত আসছে। আপনি যদি এই কাজে দক্ষ হন তাহলে আপনি সহজেই ভাল টাকা আয় করতে পারবেন।

 

Website:

too-many-ways-to-build-a-website-nowadays
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

অনলাইনে আরনিং এর আরেকটি মাধ্যম হচ্ছে ওয়েবসাইট। আপনার যদি একটি নিজের ওয়েবসাইট থাকে তাহলে তো ভাল কথা। আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ Ad (adsense) show করাতে পারবেন, affiliate marketing এর লিঙ্ক দিতে পারবেন। তাহলে আপনি Ad  এর জন্যও টাকা পাচ্ছেন আরেকভাবে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে affiliate লিঙ্ক দিলে buyer  আপনার ওয়েবসাইট থেকে আপনার জেনারেটেড হওয়া affiliate  লিঙ্ক পাবে যাতে করে আপনি ওই product এর কিছু অংশ পাবেন। ওয়েবসাইট বানানোর জন্য HTML,CSS এই সব কিছু জানার দরকার নেই। কিছু ওয়েবসাইট বিল্ডিং প্লটফরম আছে ( wordpress , weebly ) যেখানে আপনি সহজেই একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে তা কাস্টমাইজ করতে পারবেন।

 

Short Link earning:

url-shortening
  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Blogger

উপরের মাধ্যম গুলো ছারাও আপনি short link er মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারেন। এটি আপনি আপনার ওয়েবসাইট, Youtube, facebook বিভিন্ন জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। আপনি হয়তো দেখে থাকবেন অনেকে বড় বড় লিঙ্ক সরাসরি পোস্ট না করে ছোট করে পোস্ট করে যেমন, (bit.ly/……..), এই রকম গুগল এর একটি সার্ভিস আছে যা হল goo.gl  কিন্ত এ থেকে আপনি কোন টাকা পাবেন না কারন এটি একদম ফ্রি এবং ফাস্ট। কিন্ত এমন কিছু shorter website  আছে ( adfly , shorte.st ) যা প্রথমে একটি Ad এর পেজ এ যাবে এবং Ad  এর পেজটি স্কিপ করার পর আপনার দেয়া লিঙ্ক এ যাবে। এ থেকে আপনি আরনিং করতে পারেন (কিন্ত এর ব্যাবহার কম করাই উত্তম) ।

 

 

পরিশেষে, যদি আপনার কাজ করার প্রবল ইচ্ছা থাকে, আর কাজ করার মত পর্যাপ্ত সময় আপনি দিতে পারেন, আপনি কাজ করে যান, আপনি ইনকাম করতে পারবেন । আর একটি কথা, কাজ করে কখনো ধৈর্য্য হারাবেন না। মনে রাখবেন আপনি ধৈর্য্য ধরলে আপনার সফলতা নিশ্চিত ।

 

ধন্যবাদ আমার আর্টিকেল টি পরার জন্য 

Tanvir Siddiki Riyad

Write Your Comment

Pin It on Pinterest

Shares
Share This